আমিরকে স্টুডিও থেকে বের করে দিয়েছিলেন অলকা

বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খান। অভিনয় থেকে আচরণ—সব কিছুই এতটা মেপে-বুঝে করেন যে, তাতে সহজে খুঁত বের করা কঠিন।

এ কারণে তাকে পারফেকশনিস্ট বলা হয়! তারপরও এই পারফেকশনিস্টকে স্টুডিও থেকে বের করে দিয়েছিলেন প্রখ‌্যাত এক সংগীতশিল্পী।‘কেয়ামত সে কেয়ামত তক’ সিনেমায় প্রথম কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন আমির খান। জুহি চাওলার বিপরীতে অভিনয় করে দর্শকদের হৃদয় জয় করেন আমির। এই সিনেমার সঙ্গে আমির খানের সম্পর্কটা গভীর।

কারণ সিনেমাটির পরিচালক নাসির খান আমিরের কাকা। এতে শুধু মুখ‌্য ভূমিকায়ই অভিনয় করেননি, বরং সহযোগী পরিচালক হিসেবেও কাজ করেন তিনি।এ সিনেমার জন‌্য জুহি চাওলার অডিশন নেওয়া থেকে শুরু করে, সিনেমাটির বেশির ভাগ অভিনেতা চূড়ান্ত করা, প্রতিটি দৃশ‌্যের জন্য জায়গা নির্বাচন করা—সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ কাজেই তার ভূমিকা ছিল। কিন্তু এই সিনেমার শুটিংয়ের সময় স্টুডিও থেকে বের করে দিয়েছিলেন সংগীতশিল্পী অলকা ইয়াগনিক।

স্টুডিওতে গানের রেকর্ডিং শুরু করেন অলকা। এ সময় স্টুডিওর ভেতরে উপস্থিত ছিলেন আমির খান। তখন আমির খান বারবার অলকার দিকে তাকাচ্ছিলেন। বিষয়টি একেবারেই পছন্দ হয়নি তার। বারবার তাকানোর কারণে অস্বস্তিতে পড়েন অলকা। ফলে স্টুডিও থেকেই আমিরকে বের করে দেন এই সংগীতশিল্পী।

যদিও অলকা ইয়াগমিন আমিরের পরিচয় জানতেন না। আমির যে এ সিনেমার নায়ক ও পরিচালক নাসির খান তার আত্মীয় তা-ও জানতেন না অলকা। কিন্তু আমির কোনো প্রতিবাদ না করে চুপচাপ স্টুডিও থেকে বেরিয়ে যান।

পরে পরিচালক নাসির স্টুডিওতে আসেন গানের রেকর্ডিং দেখার জন্য। এ সময় বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা আমিরকে সঙ্গে নিয়ে স্টুডিওর ভেতরে ঢোকেন। শুধু তাই নয়, অলকার কাছে আমিরের প্রকৃত পরিচয় দেন। এ ঘটনার পর অলকা আরো বেশি অস্বস্তিতে পড়েন। আর সেই আচরণের জন্য আমিরের কাছে দুঃখও প্রকাশ করেন তিনি।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!