১৫ দিনের মধ্যেই প্রাথমিকে বড় সুখবর

নগদের মাধ্যমে প্রাথমিকে ১ কোটি ৪০ লাখ খুদে শিক্ষার্থীর উপবৃত্তির টাকা পাঠাচ্ছে সরকার। গত বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত এই ছয় মাসের বকেয়া টাকা ১৫ দিনের মধ্যে মায়েদের কাছে পৌঁছে যাবে। প্রাথমিকে উপবৃত্তির প্রকল্প পরিচালক অতিরিক্ত সচিব ইউসুফ আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ইউসুফ আলী বলেন, ‘বিভিন্ন জায়গায় প্রতারণার তথ্য আমাদের কাছে এসেছে। একারণে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ৫টি উপজেলায় পাইলটিং করা হবে। এতে যদি সব ঠিকঠাক থাকে, তবে পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে সারাদেশে উপবৃত্তির টাকা পাঠিয়ে দেয়া হবে। মূলত প্রতারক চক্রের প্রতারণা এড়াতে এই কৌশল নেয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীদের সঙ্গেও আলাপ করেছি। সবার সতর্ক দৃষ্টি রয়েছে। ১৫ দিনের মধ্যে শিক্ষার্থীদের মায়েদের নগদ অ্যাকাউন্টে বকেয়া ৬ মাসের টাকা যাবে। অর্থাৎ ২০২০ সালের জুলাই থেকে ডিসেম্বর, এই ছয় মাসের টাকা এই কিস্তিতে দেয়া হবে।’

প্রকল্প পরিচালক আরো বলেন, ‘এ বকেয়া ছয় মাসের অর্থ নিরাপদভাবে পাঠানোর পর পরবর্তী তিন মাসের অর্থ পাঠানো হবে। অর্থাৎ চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চের অর্থ পাঠানো হবে। এটি কার্যকর করা হবে আগামী মে থেকে জুন মাসের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে।’

প্রসঙ্গত, করোনার মধ্যে প্রাথমিকের উপবৃত্তি বিতরণের এই প্রকল্প বন্ধ ছিল প্রায় এক বছর। পরে গত ডিসেম্বরে ‘নগদ’র সঙ্গে চুক্তি করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। চুক্তির তিন মাসের মধ্যে প্রায় দেড় কোটি শিক্ষার্থী ও তাদের মায়ের তথ্যসহ ডাটাবেজ তৈরি করা হয়েছে।

এছাড়া, গত কয়েক বছর ধরে আরেক মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘শিওর ক্যাশ’র মাধ্যমে উপবৃত্তির টাকা বিতরণ করতো সরকার। এতে প্রতি হাজার টাকার উপবৃত্তি বিতরণে সাড়ে ২১ টাকা সার্ভিস চার্জ এবং ক্যাশ-আউট চার্জ লাগতো। এখন সব মিলিয়ে নগদে প্রতি হাজারে সরকারের লাগবে ৭ টাকা।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!