স্বামীকে শান্ত করে প্রাক্তন প্রেমিককে বাঁচালেন ঐশ্বরিয়া

সাবেক বিশ্ব সুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই এবং ভাইজান খ্যাত সালমান খানের সম্পর্কের ভাঙ্গন বলিউডের আলোচিত ব্রেকআপগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি। গুঞ্জন রয়েছে সালমানের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদের পর আরেক অভিনেতা বিবেক ওবেরয়ের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন ঐশ্বরিয়া।

কিন্তু সবশেষে এই বিশ্ব সুন্দরীকে জীবনসঙ্গী হিসেবে পেয়ে যান অভিষেক বচ্চন। তবে একবার ঐশ্বরিয়ার এই ত্রিভূজিক সম্পর্ক নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ট্রল শেয়ার করে বেশ বিপাকেই পড়েছিলেন বিবেক।বেশ কিছু দিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ট্রল শেয়ার করেছিলেন বিবেক। এটি শেয়ার করার ব্যাপারটি মোটেও ভালোভাবে নিতে পারেননি ঐশ্বরিয়ার ভক্তসহ, স্বামী অভিষেকও।

সেই ট্রলে দেখা যায়, একটি ছবিতে তিনটি প্যানেল তৈরি করেছেন বিবেক। প্রথম ছবিতে সালমান এবং ঐশ্বরিয়া একসঙ্গে এবং উপরে লেখা ‘ওপিনিয়ন পুল’। দ্বিতীয় ছবিতে দেখা যায় বিবেকের সঙ্গে ঐশ্বরিয়া এবং উপরে ক্যাপশন দেওয়া ‘এক্সিট পুল’। সবশেষে ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে তার স্বামী অভিষেক এবং মেয়ে আরাধ্যার ছবি দিয়ে ক্যাপশনে লেখা ‘রেজাল্ট’।

ছবটি শেয়ার করে বিবেক ক্যাপশনে লেখেন, ‘হাহাহা! এটা আসলে কোনো রাজনীতি নয়। শুধুই জীবন।’ছবিটি শেয়ার হওয়ার পর বেশ চটেছিলেন অভিষেক ও ঐশ্বরিয়া। এমনকি এ নিয়ে বিবেকের সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিলেন অভিষেক৷ মূলত এক হাত নিতে চেয়েছিলেন তিনি কান্ড জ্ঞানহীন বিবেককে।

তবে ঐশ্বরিয়ার বারণে থেমে যান।অন্যদিকে ঐশ্বরিয়ার ভক্তদের সমালোচনার মুখে আরও এক টুইট বার্তায় বিবেক জানান, ‘সবাই আমাকে নিয়ে এমন শুরু করেছে কেন জানি না। আমি আসলে আমার কোন ভুলের জন্য ক্ষমা চাইবো। একটি মিমস নিয়ে হেসেছি, এটাই কি আমার অপরাধ?’

এই টুইটের পর ঐশ্বরিয়ার ভক্তদের সমালোচনা আরও বেড়ে গেলে পরবর্তীতে ক্ষমা চান বিবেক। তিনি লেখেন, ‘আমার টুইটে আমি না বুঝেই ঐশ্বরিয়াকে কষ্ট দিয়ে ফেলেছি। আমি এখনই আমার টুইট মুছে দিচ্ছি। সবার কাছে আমি ক্ষমা চাই। কোনো মেয়েকেই আমাদের কোনো কথা দ্বারা আঘাত বা কষ্ট দেওয়া ঠিক নয়। আবারো সকলের কাছে ক্ষমা চাই আমি।’

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!