স্ত্রীর লাশ সাইকেলে চাপিয়ে দীর্ঘ পথ পাড়ি বৃদ্ধের,

ভারতের উত্তরপ্রদেশের জৌনপুরে এক বৃদ্ধের করুণ ছবি ভেসে উঠল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ওই বৃদ্ধের স্ত্রী সম্প্রতি হাসপাতালে মারা যান। করোনার ভয়ে গ্রামবাসীরা এলাকায় তার শেষকৃত্য করতে দেয়নি।

বাধ্য হয়ে তাকে সাইকেলে করে কয়েক কিলোমিটার দূরে বয়ে নিয়ে যেতে হয় স্ত্রীর লাশ। এ ঘটনার দু’টি ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।জানা গেছে, জৌনপুরে অম্বরপুর নামে এক এলাকার বাসিন্দা তিলকধারী সিংয়ের স্ত্রী রাজকুমারী (৫০) বেশ কিছু দিন ধরে রোগে ভুগছিলেন। সম্প্রতি তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে উমানাথ সিং জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সোমবার সেখানে তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর অ্যাম্বুলেন্সে করে তার লাশ গ্রামে পাঠায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু

গ্রামবাসীরা কেউ এগিয়ে আসেননি ওই নারীর শেষকৃত্যে সাহায্য করতে। উল্টা তারা বাধা দেন। তাদের মনে হয়েছিল ওই নারী করোনা আক্রান্ত ছিলেন। তাই তারা গ্রামের কাছে রাজকুমারীর শেষকৃত্যও সম্পন্ন করতে দেননি। যদিও ওই নারীর মৃত্যু করোনা হয়েছে কিনা তা সরকারিভাবে জানা যায়নি।

গ্রামবাসীদের বাধায় বাধ্য হয়ে স্ত্রীর লাশ সাইকেলে চাপিয়ে দূরের এক জায়গায় নিয়ে যেতে হয় তিলকধারীকে। এ সময় কেউ একজন ‘শেষযাত্রা’র ওই ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে কীভাবে ক্লান্ত হয়ে তিলকধারী রাস্তার ধারে বসে রয়েছেন। আর সাইকেলসহ স্ত্রীর লাশ পড়ে রয়েছে রাস্তায়। জানা গেছে, পুলিশ পরে জানতে পেরে রামঘাট নামে দূরের একটি জায়গায় শেষকৃত্যের ব্যবস্থা করে।

করোনা কেড়ে নিচ্ছে কাছের মানুষকে। কিন্তু তার জন্য যে দুঃখ প্রকাশ করবে তার জো নেই। শেষকৃত্য সম্পন্ন করার জন্য যে হয়রানি পোহাতে হচ্ছে। তাতে আরো অসুস্থ হয়ে পড়ছেন প্রিয়জন।সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!