প্রাথমিক শিক্ষকদের জন্য জরুরী নির্দেশনা

কোভিড-১৯ সময়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিখন কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে বাড়ির কাজ দিতে ‘অন্তর্বর্তীকালীন পাঠ পরিকল্পনা, ২০২১‘ প্রণয়ন করেছে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা অ্যাকাডেমি (নেপ)।

পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ওয়ার্কশীট ও অ্যাক্টিভিটিশীট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠানো হয়। লকডাউনের মেয়াদ শেষ হলে পরবর্তী তারিখ থেকে প্রথম দিন ধরে পাঠ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে হবে।শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নির্দেশনাসহ পুর্ণাঙ্গ পরিকল্পনাশীট বিভাগীয় উপপরিচালক,

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, পিটিআই সুপারিন্টেনডেন্ট ও উপজেলা/থানা শিক্ষা অফিসারদের নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর।অন্তর্বর্তীকালীন পাঠ পরিকল্পনায় সাধারণ নির্দেশনা ও শিক্ষকদের জন্য ব্যবহার নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে।

সাধারণ নির্দেশনা ১) শিক্ষার্থীদের পাঠ্যবইয়ের প্রথম থেকে ক্রমান্বয়ে সকল অনুশীলনীকে বাড়ির কাজ নামে ক্রমিক নম্বর দেওয়া হয়েছে।২) বাংলা বিষয়ের বাড়ির কাজ করার ক্ষেত্রে কোন বিষয়বস্তু (গল্প, কবিতা, নাটক) বর্ণনা) পড়তে হবে তার নির্দেশনা বাড়ির কাজের সাধারণ তথ্য অংশে উল্লেখ করা হয়েছে।

৩) প্রতি সপ্তাহের জন্য মূল পাঠ পরিকল্পনার ৬ দিনের পাঠ নির্ধারণ করা হয়েছে। ৪) সাপ্তাহিক পরিকল্পনায় শুক্রবারসহ যাবতীয় ছুটির দিন বাদ দিয়ে শ্রেণি কার্যক্রম বাস্তবায়ন করতে হবে।৫) মূল পাঠ পরিকল্পনা সাময়িক পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত দিনগুলোকে পাঠ দিবস হিসেবে গণ্য হবে।

৬) শিখন ঘাটতি পূরণে আগের শ্রেণির আবশ্যকীয় শিখন বিষয়বস্তু চিহ্নিত করা হয়েছে। শেড দেওয়া ঘরের সংযুক্ত ঘরের আগের পাঠ বা পাঠ্যাংশ বা অনুশীলনগুলো আগে শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে দিতে হবে। তারপর বর্তমান শ্রেণির পাঠ বা পাঠ্যাংশ বা অনুশীলনী শিক্ষক বুঝিয়ে দিতে হবে।

৭) যে পাঠের সঙ্গে যে বাড়ির কাজ সম্পর্কিত নম্বরসহ টেবিলে উল্লেখ করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা সরবরাহ করা বাড়ির কাজ পূরণ করার আগে তাদের পাঠ্য বইয়ে দেওয়া অনুশীলনী বা অ্যাক্টিভিটিগুলো কলম বা পেন্সিল দিয়ে পূরণ করবে, তারপর ওয়ার্কশীটগুলো পূরণ করবে।

৮) শিখন ঘাটতি পূরণে আগের শ্রেণির পাঠের সঙ্গে সম্পর্কিত বাড়ির কাজ পরবর্তী শ্রেণির বাড়ির কাজের সঙ্গে ক্রমিক নম্বরসহ উল্লেখ করা হয়েছে।৯) বিদেশি ভাষা হিসেবে ইংরেজি বিষয়ের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের পাঠ্যবইয়ের পড়া বাড়ির কাজগুলো করতে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা (পিতা, মাতা, ভাই-বোন) সহায়তা করবেন।

শিক্ষকদের জন্য ব্যবহার নির্দেশিকা১) প্রতি সপ্তাহে নির্দিষ্ট পাঠের বিষয়বস্তু ও সংশ্লিষ্ট বাড়ির কাজ শিক্ষার্থীদের কাছে প্রয়োজনীয় সহায়তা ও নির্দেশনা পৌঁছানোর ব্যবস্থা করবেন।২) নির্দিষ্ট সময় শেষে শিক্ষার্থীদের শিখন অগ্রগতি যাচাই করবেন ও বাড়ির কাজ সংগ্রহ করে তার ভিত্তিতে শিক্ষার্থী প্রোফাইল তৈরি ও সংরক্ষণ করবেন।

৩) অনলাইন শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে পাঠ পরিকল্পনায় নির্দিষ্ট তারিখে নির্ধারিত পাঠ (শিখন ঘটতি পূরণ পরিকল্পনাসহ) উপস্থাপন করবেন। পাঠ উপস্থাপনার সঙ্গে সঙ্গে ওই পাঠের জন্য নির্ধারিত বাড়ির কাজ শিশুদের যথাযথ নির্দেশনাসহ বুঝিয়ে দেবেন।৪) সকল কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে যথাযথভাবে অনুসরণ করবেন।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!