মমতাকে নিয়ে পোস্ট : কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড

বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড করেছে টুইটার। তার কয়েকটি পোস্ট মাইক্রো ব্লগিং সাইটের নীতি লঙ্ঘন করায় এ কাজ করেছে টুইটার কর্তৃপক্ষ। বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচন নিয়ে কঙ্গনার একের পর এক মন্তব্য বিতর্ক ছড়ায়।

যদিও পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের জয়ের পর কট্টর মোদি সমর্থক হিসেবে পরিচিত কঙ্গনা রানাওয়াতের মুখে শোনা যায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির প্রশংসা। তবে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার অভিযোগ তুলে মমতাকে নিয়ে কড়া মন্তব্য করেন এই বলিউড অভিনেত্রী।

বিজেপি নেতা স্বপন দাশগুপ্তর টুইটে অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কঙ্গনা টুইট করেন, ‘এটা ভয়ঙ্কর…গুন্ডাকে মেরে ফেলার জন্য আমাদের সুপার গুন্ডার প্রয়োজন…তিনি অব্যক্ত দানবের মতো, তাকে দমন করার জন্য দয়া করে ২০০০ সালের প্রথম দিকের বিরাট রূপটা দেখান মোদিজি…’

এই টুইটের পর কঙ্গনার বিরুদ্ধে কলকাতা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন হাইকোর্টের আইনজীবী সুমিত চৌধুরী। তার অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গে হিংসা আর অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছেন এই অভিনেত্রী। বিজেপিকে সমর্থন জানাতে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মানুষের মধ্যে বিভেদ তৈরির অপচেষ্টা চালাচ্ছেন।

পশ্চিমবঙ্গে ভোটের ফল প্রকাশের দিন টুইটারে কঙ্গনা লেখেন, ‘বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গারা মমতা ব্যানার্জির সবচেয়ে বড় শক্তি। যা ট্রেন্ড দেখছি তাতে বাংলায় আর হিন্দুরা মেজরিটিতে নেই এবং তথ্য অনুযায়ী গোটা ভারতবর্ষের তুলনায় বাংলার মুসলিমরা সবচেয়ে গরিব আর বঞ্চিত। ভালো, আরেকটা কাশ্মীর তৈরি হচ্ছে।’

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!