বিল গেটস দম্পতির ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন তাদের কন্যা

দীর্ঘ ২৭ বছরের দাম্পত্য, বিলিয়নিয়ার দম্পতি, তাও সম্পর্ক টিকছে না। অবাক লাগলেও এটাই ধ্রুব সত্য। তবে বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটসের বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা দুনিয়াজুড়ে বহু মানুষকে অবাক করেছে। বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন তাদের বড় মেয়ে জেনিফার ক্যাথেরিন গেটস।

ইনস্টাগ্রামে দেওয়া পোস্টে জেনিফার লিখেছেন, তাদের পরিবার এই মুহূর্তে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে।বিশেষজ্ঞদের ধারণা, জেনিফারের এই বিবৃতি ইঙ্গিত করছে সম্পত্তির ভাগ-বাঁটোয়ার দিকে। স্ত্রী হিসেবে মেলিন্ডা যেমন অংশীদার, তেমনি ভাগ রয়েছে তিন সন্তানেরও। ফলে মাইক্রোসফটের সম্পত্তির যে বিশাল সাম্রাজ্য তার কী গতি হয়, সেটিও দেখার বিষয়।

বিল গেটস ও মেলিন্ডা তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের কথা ঘোষণার পরই জেনিফার একটি ইনস্টাগ্রাম স্টোরি পোস্ট করেন। তিনি লিখেছেন, ‌‘এটি আমাদের পুরো পরিবারের জন্য একটি চ্যালেঞ্জিং মুহূর্ত। এখন আমি শিখছি এমন সময়ে কীভাবে পরিবারকে সমর্থন করতে হয়।’

সূত্রের খবর, বিশ্বের চতুর্থ ধনী বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস প্রাক-বিবাহবিচ্ছেদ চুক্তিতে সই করেননি। তাই শুরু হয়েছে জটিলতা। বিবাহ বিচ্ছেদের কথা সামনে আসতেই বিলিয়নিয়ার দম্পতি কীভাবে তাদের ১৩০ বিলিয়ন ডলারের সম্পত্তি ভাগ করবেন, তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। পরিবারে ২৫ বছরের জেনিফার ছাড়াও আরও দুই সন্তান রয়েছে। একজন ২১ বছর বয়েসের ছেলে ররি গেটস অন্যজন ১৮ বছর বয়সের মেয়ে ফোবি গেটস।

বিচ্ছেদের যৌথ বিবৃতিতে গেটস দম্পতি লিখেছেন, ‘আমরা দম্পতি হিসেবে আমাদের সম্পর্কও এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবো, এই বিশ্বাস আর নেই।’তাদের এই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে তাদের ব্যক্তিগত পরিসরকে মর্যাদা দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন বিল ও মেলিন্ডা উভয়েই। তারা আরও বলেছেন, ‘আমরা আমাদের তিন সন্তানকে ভালোভাবে বড় করেছি। আমরা একটা ফাউন্ডেশনও বানিয়েছি। এর মাধ্যমে অনেক মানুষের উপকার হবে বলে আমাদের বিশ্বাস। আমাদের আরও লক্ষ্য রয়েছে। সেগুলো পূরণের জন্য একসঙ্গে কাজ করবো।’

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!