করোনায় প্রাণ গেল ক্রিকেটারের

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিধ্বস্ত ভারত। ক্রীড়া ক্ষেত্রেও বাদ যায়নি মারণ ভাইরাসের প্রকোপ থেকে। কোভিডের কারণে স্থগিত হয়ে গেছে আইপিএল। এবার ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড পেল আরও ভয়ঙ্কর দুঃসংবাদ। করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন রাজস্থানের রঞ্জি ট্রফিজয়ী দলের সদস্য বিবেক যাদব।

শুক্রবার (০৭ মে) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম কলকাত ২৪ ঘণ্টার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জয়পুরের এক হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বিবেক। তার মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করে টুইট করেছেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন দলের ওপেনার আকাশ চোপড়া।টুইট করে তিনি লিখেছেন, রাজস্থানের রঞ্জি ক্রিকেটার ও আমার বন্ধু বিবেক যাদব আর নেই! রেস্ট ইন পিস। পরিবারের সঙ্গে সমবেদনা রইল আমার। ৩৬ বছরের এই ক্রিকেটার রেখে গেলেন স্ত্রী এবং কন্যাকে।

জানা গেছে, ২ বছর আগে লিভার ক্যান্সার ধরা পড়েছিল বিবেক যাদবের। কেমোও চলছিল তার। কিন্তু সম্প্রতি সেরে উঠছিলেন বিবেক। কিছু দিন আগে ও কেমোথেরাপির জন্য হাসপাতালে গিয়েছিলেন, তখনই ওর কোভিড ধরা পড়ে। এর পরই ওর শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হতে শুরু করে। শেষ পর্যন্ত মহামারির সঙ্গে লড়াই করতে না পেরে প্রাণ হারালেন বিবেক। প্রাক্তন ক্রিকেটারের করোনায় মৃত্যুর খবরে শোকের ছায়া ক্রিকেট মহল।

রাজস্থান দলের হয়ে ১৮টি প্রথমশ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন বিবেক। উইকেট নিয়েছেন ৫৭টি। ২০১০-১১ মৌসুমে ঘরোয়া ক্রিকেটে রঞ্জি চ্যাম্পিয়ন রাজস্থান দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন এই তরুণ এই লেগ-স্পিনার। বিবেকের কেরিয়ারের সেটাই সেরা সাফল্য। ফাইনালে ভদোদরার বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে ৯১ রান খরচ করে ৪ উইকেট নিয়েছিলেন বিবেক। প্রতিপক্ষের ব্যাটিং অর্ডারের প্রথম পাঁচজনের মধ্যে চারজনই ছিলেন তার শিকার। বিবেকের দুরন্ত বোলিংয়ের ফলে রঞ্জি ফাইনালে প্রথম ইনিংসে বড় রানের লিড পেয়েছিল রাজস্থান। এর ফলেই রঞ্জি চ্যাম্পিয়ন হয় তারা।

এছাড়াও ২০১২ আইপিএলে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস দলে ছিলেন বিবেক। যদিও একটিও ম্যাচ খেলার সুযোগ পাননি এই লেগ-স্পিনার৷তবে ৩০ বছরে পা রাখার আগেই কেরিয়ারের শেষ প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ম্যাচ খেলেছিলেন বিবেক। কারণ ক্যানসার থাবা বসিয়েছিল তার শরীরে। তারপর করোনার কোপে অকালে চলে গেলেন ভারতীয় ক্রিকেটের তরুণ এই লেগ-স্পিনার।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!