সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতি অধিদপ্তরের গুচ্ছ নির্দেশনা

দেশে করো'নাভাই'রাস ভ'য়াবহ হয়ে উঠেছে। তারমধ্যে আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এমন অবস্থায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আরো এক মাস বাড়িয়েছে মন্ত্রণালয়। তবে হঠাৎ করে ডেঙ্গু রোগী বেড়ে যাওয়ায় এর প্রতিরোধ হিসেবে দেশের সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতি ৭টি নির্দেশনা জারি করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই)।

নির্দেশনাগুলো হলো-

১. অফিস, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও এর আশেপাশে যেসব জায়গায় স্বচ্ছ পানি জমা'র সম্ভাবনা থাকে (প্রতিষ্ঠানের ছাদ, নির্মাণাধীন ভবন, ফুলের টব, বাগান, নালা, পানির ট্যাপের আশেপাশের এলাকা, পানির পাম্প, ফ্রিজ বা এসির পানি জমা'র স্থান, পানির বদনা, বালতি, হাইকমোড, আইসক্রিম বক্স, প্লাস্টিক বক্স, ডাবের খোসা, নারিকেলের মালা, টায়ার ইত্যাদি) সেসব জায়গা চিহ্নিত করে এক দিন পরপর পরিষ্কার করতে হবে।

২. অব্যবহৃত পানির পাত্র ধ্বংস অথবা উল্টে রাখতে হবে, যাতে পানি না জমে।৩. হাই-কমোডে হারপিক ঢেলে ঢাকনা বন্ধ করে রাখতে হবে, লো-কমোডের প্যানে হারপিক ঢেলে বস্তা বা অন্য কিছু দিয়ে মুখ বন্ধ করে রাখতে হবে।৪. কোনও জায়গায় জমা পানি থাকলে লার্ভিসাইড স্প্রে করতে হবে অথবা জমা পানি নিষ্কাশন করতে হবে।

৫. দিনে অথবা রাতে ঘুমানোর সময় অবশ্যই মশারী ব্যবহার করতে হবে।৬. ডেঙ্গু প্রতিরোধ কার্যক্রমে সিটি করপোরেশন বা পৌরসভা'র সাথে সমন্বিত অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।৭. ডেঙ্গু জ্বরে আতঙ্কিত না হয়ে চিকিৎসকের পরাম'র্শ নিতে হবে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!