বাকি দুই ম্যাচ জিতলেও বাংলাদেশের বিশ্বকাপের মূলপর্ব অনিশ্চিত

বিশ্বকাপের মূলপর্বের টিকেট পেতে ওমানে বাছাইপর্বে ল'ড়াই করছে ৮ দল। দুই গ্রুপে চার দলে বিভক্ত হয়ে ল'ড়ছে বিশ্বকাপের মূল পর্বের টিকিট পাওয়ার জন্য। যেখানে দুই গ্রুপ থেকে দুটি করে মোট ৪ দল সরাসারি অংশগ্রহণ করতে পারবে পরবর্তী পর্বে।

বাছাইপর্বে ‘বি গ্রুপে’ রয়েছে বাংলাদেশ, ওমান, স্কটল্যান্ড ও পাপুয়া নিউগিনি। রোববার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনিকে ১০ উইকে'টে উড়িয়ে দিয়ে নেট রানরেটে এই গ্রুপের শীর্ষে অবস্থান করছে ওমান। দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশকে হারিয়ে স্কটল্যান্ড অবস্থান করছে দুই নম্বরে। বড় পরাজয়ে গ্রুপে সবার শেষে অবস্থান করছে পাপুয়া নিউগিনি ও স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হারে তিন নম্বরে অবস্থান করছে বাংলাদেশ দল।

ওমান এবং স্কটল্যান্ডের ঝুলিতে এখন সমান ২ পয়েন্ট আছে। তবে ১০ উইকে'টের বিশাল জয়ের কারণে নেট রান-রেটে এগিয়ে আছে ওমান। তাদের নেট রান-রেট এখন ৩.১৩৫। স্কটল্যান্ডের ০.৩০০। তিনে থাকা বাংলাদেশ -.৩০০ আর পাপুয়া নিউগিনি -৩.১৩৫ নেট রান-রেট নিয়ে আছে চার নম্বরে। আগামীকাল দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ওমান। ওই ম্যাচটি হারলেই কোনো সমীকরণ ছাড়া বাংলাদেশকে বিদায় নিতে হবে বাছাইপর্ব থেকে।

অন্যদিকে বাংলাদেশ যদি পরবর্তী দুটি ম্যাচে জয়ও পায়, তাহলেও সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত নয়। নিজেদের দুই ম্যাচ জয়ের পাশাপাশি মাহমুদউল্লাহদের এখন প্রত্যাশা করতে হবে, স্কটল্যান্ড যাতে পরবর্তী দুটি ম্যাচে জয় পায়। তাহলে গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে টাইগাররা দ্বিতীয় রাউন্ড খেলতে পারবে। এর বিপরীত কিছু হলে, মানে স্কটল্যান্ড ওমানের বিপক্ষে হেরে গেলে অন্যদিকে পাপুয়া নিউগিনির বি'রুদ্ধে জয় তুলে নিলে ওমান মূলপর্বে জায়গা করে নিবে নেট রান রেটে এগিয়ে থেকে। অন্যদিকে স্কটল্যান্ড ওমানের বিপক্ষে হেরে পাপুয়া নিউগিনির বি'রুদ্ধে জয় তুলে নিলে তারাও এগিয়ে থাকবে বিশ্বকাপ মূল পর্বে যাওয়ার দৌড়ে।

তখন বাংলাদেশ নিজেদের পরবর্তী দুই ম্যাচ জিতলেও স্কটল্যান্ডের সঙ্গে রানরেটের জটিল সমীকরণে পরে যাবে । তাই বাংলাদেশকে এখন অ'পেক্ষা করতে হবে ওমানের পরবর্তী দুটি ম্যাচেই হার দেখার জন্য। তার সঙ্গে নিজেদের দুইটি ম্যাচও বড় ব্যবধানে জিততে হবে। নয়তো বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব থেকেই লজ্জার বিদায় নিতে হবে মাহমুদউল্লাহ বাহিনীর।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!